অবশেষে রিক্সাওয়ালাকে নির্যাতনকারী সেই ব্যক্তি আটক

রাজধানী ঢাকার ধোলাইখাল এলাকায় এক দরিদ্র রিকশাচালককে বিনা কারণে মারধর করেছে এক ব্যক্তি। ঐ ঘটনার দৃশ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।  অবশেষে সেই অভিযুক্ত ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ।

ভাইরাল হওয়া ভিডিওটিতে দেখা যায়, অভিযুক্ত ব্যক্তি কিছু না বলে রিক্সায় উঠেই টিপু সুলতান রোডে যাওয়ার জন্য রিকশাওয়ালাকে এক প্রকার হুকুম করে। রিকশাওয়ালা বৃষ্টিতে ভিজে মাত্রই একজন যাত্রী নিয়ে এসেছে। সেই মুহুর্তে সে হয়তো কিছুটা জিরিয়ে নিতে চাচ্ছিল। 

রিকশাওয়ালা যেতে চাচ্ছিলেন না। যাত্রীকে তিনি অন্য একটি রিকশায় যেতে বলেন। কিন্তু, লোকটি তার রিকশাতেই যাবে। তাকে নিয়ে যেতেই হবে। এক দুই কথায় তিনি রিকশাওয়ালাকে বিশ্রী ভাষায় গালি দিতে থাকেন এবং একই সাথে নির্বিচারে তার মাথায় ও গালে জোরে জোরে আঘাত করতে থাকেন। উপস্থিত দু’একজন ভদ্রলোক এর বিরোধিতা করলেও যাত্রী লোকটি তাতে কোনো কর্ণপাত করেনি।

এনিয়ে এক সংবাদকর্মী এই বিষয়টি বাংলাদেশ পুলিশের মিডিয়া এন্ড পাবলিক রিলেশন্স উইং এর দৃষ্টিতে আনেন। বিষয়টি জানার পরপরই মিডিয়া উইং সংশ্লিষ্ট থানাসমূহের সাথে যোগাযোগ করে ঘটনাস্থল নির্ণয় করে।

ঘটনাস্থলটি সূত্রাপুর থানার এবং ওয়ারী থানার সীমান্তবর্তী একটি স্থান। দ্রুততম সময়ে আসামীকে খুঁজে বের করে আসামীকে গ্রেফতার করার জন্য উভয় থানাকেই নির্দেশনা দেয় মিডিয়া এন্ড পাবলিক রিলেশন্স উইং। অল্প সময় পরেই নিশ্চিত হওয়া যায় স্থানটি ওয়ারী থানা এলাকার মধ্যে। এ বিষয়ে সমন্বিতভাবে কাজ করতে দুই থানার মধ্যে সমন্বয় করে দেয় মিডিয়া এন্ড পাবলিক রিলেশন্স উইং।

এর পরিপ্রেক্ষিতে, ওয়ারী থানার ওসি মো. আজিজুর রহমান এবং সূত্রাপুর থানার ইন্সপেক্টর তদন্ত স্নেহাশীষ রায়ের তৎপরতা ও ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় দুই দিন ধরে বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করা হয়।

অবশেষে, আজ শুক্রবার বিকালে লালমোহন সাহা স্ট্রীটের একটি বাড়ি থেকে তাকে আটক করা হয়। আটককৃত ব্যক্তির বিরুদ্ধে যথাযথ আইনি পদক্ষেপ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।